শেয়ার বাজার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা(Basic Idea About Share Market in Bengali)

আজ আমি এই পোস্টে শেয়ার বাজার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা দিতে যাচ্ছি।

টাকা সবাই ইনকাম করতে  চায় । টাকা ইনকাম করার অনেকগুলি পথ রয়েছে।  কেউ চাকরি করে,  কেউ ব্যবসা করে, কেউ বা তার প্রতিভা থেকে টাকা ইনকাম করে  । আবার  কেউ  টাকা ইনভেস্ট করে টাকা ইনকাম করছে।  শেয়ার বাজার  হলো টাকা ইনভেস্ট করার একটি প্লাটফ্রম।  এখানে অনেকেই টাকা ইনভেস্ট বা বিনিয়োগ করে ইনকাম করছে। তবে ঝুঁকিও রয়েছে। আজ আমি এই বিষয়েই কথা বলব শেয়ার মার্কেট কি? কখন এবং কিভাবে শেয়ার মার্কেটে শেয়ার কেনাবেচা করা যায়? শেয়ার বাজার সম্পর্কে ভালো জ্ঞান না থাকলে ইনভেস্ট না করাই ভালো।

 শেয়ার বাজার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা(Basic Idea About Share Market in Bengali)

শেয়ার মার্কেট স্টক মার্কেট নামেও পরিচিত। শেয়ার বাজার এমন একটি বাজার  যেখান থেকে আপনি প্রচুর কোম্পানির শেয়ার কিনতে এবং বিক্রি করতে পারেন।  এই শেয়ারটি কী?

বকোনও কোম্পানির শেয়ার কেনার অর্থ সেই কোম্পানির অংশীদার হওয়া। আপনি যেকোন কোম্পানির শেয়ার কিনলেন, তার মানে আপনি সেই কোম্পানির অংশীদার হয়ে গেলেন । আপনি সেই সংস্থায় কিছু অংশীদারিত্ব পেলেন। এখন যদি সেই কোম্পানি উন্নতি  লাভ করে তাহলে আপনিও উপকৃত হবেন। এবং যদি কোম্পানির লস বা ক্ষতি হয় তাহলে আপনারও লস বা ক্ষতি হবে।

এই কারণেই   আপনি যদি শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে ভালভাবে অবগত না হন – শেয়ার মার্কেট কি?  এর মধ্যে  কিভাবে অর্থ বিনিয়োগ করা উচিত? , কোন কোম্পানিতে বিনিয়োগ উচিত এবং কোন কোম্পানিতে বিনিয়োগ করা উচিত নয়? এসব ভালোভাবে না জানা পর্যন্ত শেয়ার বাজারে নামা উচিত নয়।

শেয়ার বাজার সম্পর্কে তথ্য পাওয়ার অনেক উপায় আপনার কাছে রয়েছে। আপনি নিউজ পেপার, বিজনেস চ্যানেল দেখতে পারেন, সিএনবিসি আওয়াজ প্রভৃতি  শেয়ার বাজার সম্পর্কে অনেক তথ্য দেয়।   যেমন কোন শেয়ারের দাম বেড়েছে, কোন শেয়ারের দাম কমে গেছে, কোন সংস্থাগুলিতে বিনিয়োগ করা উচিত এবং কোনটিতে আপনার বিনিয়োগ করা উচিত নয় প্রভৃতি। শেয়ার বিশেজ্ঞরা  এই ধরণের পরামর্শ দিয়ে থাকে।

শেয়ার কেনার জন্য আপনাকে প্রথমে একটি ডেম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। যা আপনি একজন ব্রোকারের মাধ্যমে খুলতে পারেন।  এছাড়া আপনি ব্যাংকে গিয়েও আপনার ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

আপনি ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট ছাড়া শেয়ার কিনতে বা বিক্রি করতে পারবেন না। আপনাকে ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলতেই হবে। এবং আপনি চাইলে এটি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট লিঙ্ক করতে পারেন। আপনার লাভের অর্থ যাই হোক না কেন, আপনি এটি আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করতে পারেন।  ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলতে আপনার ব্যাংকে একটি অ্যাকাউন্ট থাকা দরকার। এছাড়া  প্যান কার্ড এবং আধার কার্ডের মতো  প্রমাণ থাকা দরকার।

শেয়ার কেনা বেচার জন্য ভারতে দুটি প্রধান স্টক এক্সচেঞ্জ রয়েছে। প্রথমটি হল বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ (বিএসই) এবং দ্বিতীয়টি হল ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ (এনএসই) । একজন ব্রকার এর সদস্য। ব্রোকারের মাধ্যমে আমরা স্টক এক্সচেঞ্জে ট্রেডিং করতে পারি।

এছাড়া দেখুনঃ

ফ্লিপকার্ট(Flipkart ) থেকে টাকা আয় করার উপায়?

ইউটিউব চ্যানেলে ভিউ(View) বাড়ানোর উপায় 2021?

Leave a Reply